খেলাধুলা

প্রধানমন্ত্রীর ফোনে কেঁদে ফেলেন আবেগী আফিফ!

ত্রিদেশীয় টি-টুয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে শুভ সূচনা করে বাংলাদেশ। ২৬ বলে ৫২ রান করে জয়ের নায়ক তরুণ ক্রিকেটার আফিফ হোসেন ধ্রুব। আফিফের পারফর্ম্যান্সে মুগ্ধ হয়ে তাকে অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৮ ওভারের ম্যাচে ১৪৫ রানের টার্গেট পায় বাংলাদেশ। তবে ৬০ রানেই ৬ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে টাইগাররা। সেখান থেকে দলকে জয়ের স্বাদ দেন আফিফ ও মোসাদ্দেক। মাত্র ২৬ বলে ৫২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হন মাত্র দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টি খেলতে নামা আফিফ।

আফিফের এমন পারফর্ম্যান্সে মুগ্ধ হন দেশের প্রধানমন্ত্রীও। তাই বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের ফোনে কল দিয়ে তিনি এ তরুণ ক্রিকেটারের সঙ্গে কথা বলেন। তাকে অভিনন্দন জানান। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কী কথা হয়েছে জানতে চাইলে আফিফ বলেন, ‘উনি আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ম্যাচ জেতায় পুরো দলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।’

প্রধানমন্ত্রীর ফোন পেয়ে আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন আফিফ। এমনকি তাকে ফোনে কথা বলার সময় আবেগে কাঁদতেও দেখা যায়।

এছাড়া বাংলাদেশের জয়ের পর নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গেও কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বিসিবির প্রেসিডেন্ট পাপন প্রধানমন্ত্রীর ম্যাচের খোঁজ খবর রাখার বিষয়টি জানান। তিনি বলেছেন, ‘ম্যাচের কঠিন মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী দোয়া পড়েছেন, বাংলাদেশ যেন ম্যাচটি জিততে পারে। ম্যাচ শেষ হওয়ার পর ফোনে ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলেছেন।’

পাপন আরও বলেন, ‘এসব কী হচ্ছে? তারপর আফিফের সাহসী, স্বচ্ছন্দ ও সাবলীল ব্যাটিং দেখে বলেন, আফিফকে কেন এত দেরিতে এবং নিচে নামানো হলো?’

‘পাপন এইটা কী হচ্ছে? এ রকম হচ্ছে কেন? উনি তখন চিন্তিত। তারপর যখন আফিফ আসলো। আফিফের খেলা দেখে বললেন- ও আগে নামে নাই কেন? একে তো আগে দেখিনি! আমি বললাম, আপা ও তুলনামূলকভাবে একদম নতুন এসেছে। মাত্র ১৯ বছর বয়স। ওর আসলে পাঁচে খেলার কথা ছিল।

এই সম্পর্কিত আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close