রাজনীতি

স্কাইপে ছাত্রদল নিয়ে নির্দেশনা দিলেন তারেক রহমান

ছাত্রদলের কাউন্সিলে হঠাৎ আদালতের স্থগিতাদেশ নিয়ে চিন্তায় পড়েছে বিএনপি। এ বিষয়ে শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৈঠকে বসেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জ্যেষ্ঠ নেতারা। বৈঠকে লন্ডন থেকে স্কাইপে যুক্ত হন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে তারেক রহমান প্রথমে উপস্থিতদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। তাদের খোঁজ-খবর নেন। পরে দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের কাছে জানতে চান যে, কী করে ছাত্রদলের কাউন্সিলে আদালতের অস্থায়ী স্থগিতাদেশ আসার মতো পরিবেশ তৈরি হলো। নেতারা তারেক রহমানকে ছাত্রদলসহ দলের বিভিন্ন দিক নিয়ে বর্তমান অবস্থাও জানান।

সূত্র আরও জানায়, তারেক রহমান এই বৈঠকে কিছু কিছু বিষয়ে অসন্তোষ ছিলেন। তিনি নানাভাবে নেতাদের দৃঢ়ভাবে ছাত্রদল ও বিএনপির অঙ্গসংগঠনগুলোকে পরিচালনার পরামর্শ দেন, ছাত্রদলকে চাঙা করার কথা বলেন, সঠিক নেতৃত্বের হাতে ছাত্রদল পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়ার কথা বলেন।

তবে ছাত্রদল নিয়ে তারেক রহমান ঠিক কী কী নির্দেশনা দিয়েছেন, দলীয় স্বার্থের কথা উল্লেখ করে সূত্রটি এ বিষয়ে কিছু জানায়নি।

শুক্রবার এ বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ছাত্রদলের কাউন্সিলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে তারা নিজেরাই। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে। এটি ছাত্রদলেরই ব্যাপার। বিএনপি এরসঙ্গে কোনোভাবেই জড়িত না। তারা (ছাত্রদল) আদালতে মুখোমুখি হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, রাজনৈতিক দলের কার্যক্রমে আদালতের হস্তক্ষেপ নজিরবিহীন। সরকারের হস্তক্ষেপে আদালত কাউন্সিলের স্থাগিতাদেশ দিয়েছেন। ছাত্রদলের কাউন্সিলে যে স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে, তাতে বোঝা যায়, এখানে সরকারের হস্তক্ষেপ আছে। আছে বলেই এই স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে।

এ দিন বিকাল ৫টার দিকে শুরু হওয়া বৈঠক শেষ হয় সন্ধ্যা ৭টার পর। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, আমির খসরু মহমুদ চৌধুরী।

এই সম্পর্কিত আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close